Type to search

গল্প

স্টেশন

ভদ্রলোক মাঝবয়সি। ছাগলের মতো পান চিবুচ্ছেন। তার ঠোটের দুইপাশ দিয়ে পানের লাল রস গড়িয়ে পড়ছে। উনি চট্টগ্রাম রেল ষ্টেশনের লাইনম্যান।

আমি যখন স্টেশনে পৌছালাম, হুমু তখনো আসেনি এবং তখনো ট্রেন ছেড়ে দেওয়ার মাত্র তিন মিনিট বাঁকি। আমি তখনো হুমু নামের মেয়েটির কন্ঠের সাথেই পরিচিত। ঠিক তখনো ওর আঙ্গুলে ছুঁয়ে দেওয়া মেসেজকেই আমি আপন মনে করতাম। ঠিক তখনো ওকে স্পর্শ করার সৌভাগ্য আমার হয়ে উঠেনি। ঠিক তখনো ওর শরীরের গন্ধ আমার অজানা। ঠিক তখন পযন্ত হুমু নামের কেউ আমার দিকে গাঁড় ঘুরিয়ে তাকায়নি। ঠিক তখনো আমি অনিশ্চিত ছিলাম ওর সাথে আমার দেখা হবে কিনা…

লাইনমম্যান ভদ্রলোক যখন সবুজ পতাকা নিয়ে ট্রেনের সামনে নিরাপধ সংকেত দিতে যাচ্ছে তখন দুরে একজনকে দেখলাম অনেকটা দৌড়েই ট্রেনের কাছে আসছে। তার কানে ফোন। সে ফোনের কলের রিং আমার পকেটে ভাজছে। হুমু!! আমি দৌড়ে ট্রেন থেকে নামি। ওরে জড়িয়ে ধরি। ওর আমার বুকে মাথা রেখে ও যখন হাপাতে থাকে তখন ট্রেন ছাড়ার তেইশ সেকেন্ড বাঁকি।

পান চিবানো লাইনম্যান একবার আমাদের দেখে। তিনি হঠাৎ ট্রেনের সামনে গিয়ে লাল পতাকা উড়িয়ে দিয়ে ঘোষনা দেয় “লাইনে সমস্যা আছে, ট্রেন পনেরো মিনিট পড় ছাড়বে”

তারপর উনি আমাদের দিকে তাকিয়ে একটু হাসে।

শেয়ার করুন
Tags:

You Might also Like

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *