Type to search

গল্প

সুকন্যা এবং একটি একান্ত অপারগতা

এমনিতে আমি সুকন্যার ব্লক লিষ্টে থাকি। তবে সুকন্যা মাঝে মাঝে আমাকে আনব্লক করে নক দেয়। সমাচার জিজ্ঞেস করে।
– জাহিদ কেমন আছো?
– ভালো, তুমি?
– ভালো। আচ্ছা তুমি কি বদলাইসো?
– মানে?
– মানে স্বাভাব বদলাইসো কিনা
– হু, অনেকটা বদলাইসি

তারপর সুকন্যা খুব নাটকিয় কায়দায় জিজ্ঞেস করে, আমি এখন কয়টা প্রেম করছি। আমি যেহুতো সবসময় সত্য বলার চেষ্টা করি এবং এ জন্য পরিচিত মহলে আমার বেশ একটা ক্ষ্যাতী আছে, কাজেই আমাকে ক্ষ্যাতী রক্ষার্থে পূর্বের তুলনায় প্রেম সংখ্যা কিছু বাড়িয়ে বলতেই হয়। সুকন্যা তখন বলে, ‘কুকুরের লেজ কখনো সোজা হয়না’। আমি বলি, ‘দ্যাখো আমি প্রেমিক হিসেবে খারাপ, মানে স্বামী হিসেবে অনেক ভালো হবো।’

সুকন্যার মন দ্রবীভূত হয়না। আমি বলি, ‘আচ্ছা, আমরা কি কখনো এ্যড হবো না একে অপরের সাথে?’ সুকন্যা তখন আমাকে ‘জাহিদ’ না বলে ‘Gahid’ বলে গালী দেয়। তারপর রাগের ইমো দিয়ে বলে, ‘না হবো না। তোমাকে ব্লক করে দিবো আবার ৪৮ ঘন্টা পর।’

ঠিক তখন আমার মনে হয় আমি যেনো কনডেম সেলে বন্ধি ফাঁসির আসামী। কোন এক সুন্দুরি জেলার এসে আমার গাঁয়ে মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে অশ্রুস্নাত চোখে তাকিয়ে বলে, ‘তোমাকে ফাঁসি দিয়ে দিবো ৪৮ ঘন্টা পরে’। আমার তখন কিচ্ছু করার থাকে না, সুকন্যা।

শেয়ার করুন
Previous Article
Next Article

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *