Type to search

জাহিদীয়

জাহিদের সাথে নিষিদ্ধ পানি পান পরবর্তী

জাহিদ লোকটারে আমার পছন্দ।পছন্দ হ‌ওয়ার কারণ হলো,লোকটা আমারে সম্মান করে।আমার সাথে বসেই মদ গাঁজা খায়,তবে বাইরে আমার সামনে কখনো সিগারেট‌ও খায় না।মাতাল অবস্হায় জাহিদ বড় পর্যায়ের বিজ্ঞ বিজ্ঞ ভাব নিজের মধ্যে ফুটিয়ে তোলে,এবং নানান ধরনের গুরুগম্ভীর কথা বলে।আজকের টপিক প্রেম এবং প্রেমিকা কেন্দ্রিক।কারণ তার প্রেমিকা ঋতু গতসপ্তাহে তাদের আড়াই বছরের প্রেম ভুলে বড় মামার কথামতো সেনাবাহিনীর এক জোয়ানকে বিয়ে করে ফেলছে।জাহিদ এ নিয়ে খুব আপসেট।ঘুরে ফিরে তার সব কথাই এখন ঋতুরে আঁকড়ায় ধরে থাকে।

নিষিদ্ধ পানি পান করার এক পর্যায়ে জাহিদ বললো, ‘প্রেমিকা মরে গেলে সেই শোক মানা যায় ভাই।প্রেমিকার মৃত্যুর শোক চল্লিশ দিন থাকে।প্রেমিকা অন্যের হয়ে গেলে সেই শোক মানা যায় না।প্রেমিকা আরেকজনের আদর খাবে-এইটা মৃত্যু শোকের চাইতে গভীর।এই শোক আমৃত্যু থাকে। হুটহাট মনে পড়ে,কারনে অকারনে!’

কথায় তাল না দিলে গল্প হয়না সূত্রে আমি গলায় তরল ঢালতে ঢালতে তার কথায় সায় দিয়ে বললাম,”হ জাহিদ,খুব কষ্ট…খুব বেশি শোক।আসলেই প্রেমিকার অন্যের আদর খাওয়া কোনমতেই মাইনা নেয়া যায় না।বিয়ের পর প্রেমিকা খাবে ভাত,গমের রুটি,মুরগির ঝোল,প্রেমিকা কেন অন্যের আদর খাবে!”

জাহিদ বললো,”ভাই,আপনের নেশা হ‌য়ে গেছে।আপনে আবোল তাবোল বলা শুরু করছেন।”

নিজের প্রতি যথেষ্ট কনফিউজড হয়ে জিজ্ঞেস করলাম,”তাই বলতেছি নাকি?কোনটা কোনটা?”

“এই যে বিয়ের পর প্রেমিকার মুরগির ঝোল আর গমের রুটি খাওয়ার কথাটা।”

“এইখানে ভুল কি বললাম জাহিদ?”

“আরেকজনের সাথে বিয়ের পর তো নিজের প্রেমিকা আর প্রেমিকা থাকেনা ভাই,সে অন্যের ব‌উ হ‌য়ে যায়।”

এই কথা শোনার পর আমরা দু’জনেই হা হা করে হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়লাম।জাহিদ তার অর্ধেক টানা সিগারেট আমার দিকে বাড়িয়ে দিলো।আমি সিগারেট টানতে টানতে রুবার কথা মনে পড়লো।এই মেয়েটা আমার প্রেমিকা না।তবুও তার অন্যের আদর খাওয়াটা আমি মাইনা নিতে পারবো না।এবং এই না পারার কষ্টটা যেন আমি এই জলরাতে ফ্লোরে শুইয়া সিগারেট টানতে টানতেই অনুভব করতে পারতেছি।

জাহিদ ঘুমায় গেছে, নেশা হয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর‌ই সে ঘুমায় যায়। আমার ক্যান জানি মনে হ‌ইতেছে জাহিদ ঘুমায় নাই আজকে।মৃত্যু শোক নিয়া সে ঋতুর অন্যের আদর খাওয়াটা খুব কষ্টে মাইনা নেয়ার চেষ্টা করতেছে।লোকটারে বলা দরকার ছিল,”কষ্ট পুইষেন না জাহিদ,কষ্ট পুষতে হয় না।কষ্ট বুকে পুষলে আপনেরে অসময় আইসা ঘিরা ধরবো জোঁকের মতো,ধীরে ধীরে মরার আগেই ম‌ইরা যাবেন আপনে।আর যেহেতু আপনের প্রেমিকার নাম ছিল ঋতু,সে তো বদলাবেই।ঋতু বদলানো মাইনা নেয়ার টেন্ডেন্সি না থাকলে প্রেম বাড়াইতে হয় না।বেশি প্রেম বুকে ধরে প্রেমিকের সাথেই ঘর করে,এত বড় প্রেমিকা হবে জগতে জন্মাইছে ক’জন!”

আসলাম মালিক

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *