Type to search

সমসাময়িক

একটি একান্ত আক্ষেপ

উত্তরা পাঁচ নাম্বার পার্কে বসে ছিলাম এক ফ্রেন্ডের সাথে। আমাদের পেছনে কয়েকটা ছেলে ছিলো যাদেরকে পার্কে ঢুকার পর থেকেই দেখতেসিলাম ক্রমাগত সেলফি তুলেই যাচ্ছে… আবার পার্কের ভেতরটা ভিডিও করছে। কিছুক্ষণ পর এক আঙ্কেল একটা ছোট বাচ্চাকে নিয়ে পার্কে ডুকে বসলো। সেলফি উঠানো ছেলেদের মধ্যে একজন বললো, “আঙ্কেল বাচ্চাদের নিয়া পার্কে আসবেন না! দেখেনই তো এখানে কি হয়…”

কথাটা মাথায় লাগলো। পাঁচ নাম্বার পার্কে সপ্তাহে একদিন আমরা গিটার নিয়ে বসি। এখানকার পরিচালনা পর্ষদ, গার্ড সবাই পরিচিত… ছেলেটারে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম,

– কি হয় এখানে ভাই?
– এইযে ছেলে মেয়েরা একসাথে বসে আছে!
– ছেলে মেয়েরা একসাথে বসে থাকার দৃশ্য বাচ্চারা দেখলে প্রবলেম কি?
– বাচ্চারা তো যা দেখবে তাই শিখবে!
– এখানে কি খারাপ কিছু হচ্ছে যেটা বাচ্চারা দেখলে সমস্যা? আর এইটা পর্কে এসে দেখার মতো কোন রেয়ার দৃশ্যও তো না।

ছেলেটা হাত দিয়ে আমাকে কয়েকটা ক্যাপল দেখালো যা শুধু হাত ধরে বসে ছিলো… একজন ছেলে এবং একজন মেয়ের হাসিমুখে হাত ধরে বসে থাকার দৃশ্য আমার কাছে সবচাইতে সুন্দর দৃশ্যগুলোর মধ্যে একটি। এটা কিভাবে কুরুচি পূর্ণ হয় মাথায় ডুকলো না। ক্যাপল দেখলে পুলিশ ঝামেলা করে। ক্যাপল দেখলে মানুষ বাঁকা চোখে তাকায়। এই সমাজ ঘুষ বুঝে, দুর্নীতি বুঝে, মানুষ ঠকানো বুঝে, ধর্ষণ বুঝে, প্রেমের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিলে এসিড মারা, কোপানো বুঝে… ভালোবাসা বুঝেনা

শেয়ার করুন
Tags:

You Might also Like

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *