Type to search

গল্প

একজন অভ্রু এবং অসুখী কদমফুল

বড় রাস্তার পাশে দেখলাম, দুটো পিচ্চি কদম গাছের মগডালে উঠে মহাউৎসাহে শুভ্র ফুল গুলো ছিড়ে ছিড়ে নিচে ফেলছে। মাত্র ছুটি হওয়া গার্মেন্টস কর্মীরা দ্বিগুণ উৎসাহে সেগুলো কুড়িয়ে নিয়ে একে অপরের গায়ে ছুড়ে মারছে। যেনো এই খা-খা রোদেও শহরে কাল্পনিক এক বর্ষা উৎসব। আমি মনে মনে চাচ্ছিলাম যাতে গাছের সব ফুল না পেড়ে ফেলে। ফুলে ঘীরে থাকা সাদা গাছটাকে তখন কেমন দেখাবে- এটা ভেবে আমার একটু মন খারাপ হলো।

চিত্রার জন্য দুটো ফুল নিয়ে গেলে কেমন হয়? ঋতু চক্রে বর্ষা চলছে। বৃষ্টি নেই, রোদে ঘেমে দুটো ফুল নিয়ে যদি চিত্রার সামনে দাড়াই- ও কি আমাকে চিনতে পারবে? ইত্যাদি ভেবে গাছের নিচে গেলাম। দুটো ফুল কুড়িয়ে নিলাম এই উৎসব আমেজের মাঝে। একটা ফুল আমার পছন্দ হয়েছে, নাদুসনুদুস। তবে আরেকটা ফুলের দেখে মনে হবে তার বুঝি মন খারাপ।

মন খারাপ ফুলটার মন ভালো করার জন্য দুই পাশের পাপড়ি ছড়িয়ে সুন্দর ভদ্র বালকের মতো চুল কেটে দিলাম। তারপর বুক পকেটে রেখে তার মাথাটা পকেটের বাহিরে বের করে রাখলাম। শহরের রাস্তা ঘাট, অট্টালিকা আর গাড়ির বহর দেখে যদি তার মন ভালো হয়।

গন্তব্য চিত্রাদের রাজমহল। রাজকন্যা চিত্রার জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর ফুল কদম নিয়ে যাচ্ছে সবচেয়ে অসুন্দর বালক অভ্রু-কুমার। কদম ফুলের নিজেকে দেখার ক্ষমতা নেই, থাকলে নিশ্চয়ই নিজের সৌন্দর্যের দাপটে এই ধুলোবালির পৃথিবীতে নামতে চাইতো না। সে অর্থে চিত্রাও অনেকটা কদম ফুলের মতো।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *