Type to search

সমসাময়িক

ইফতারের দাওয়াত দিয়ে নয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ এবং অন্যান্য

“ইফতারের দাওয়াত দিয়ে নয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ” যে দেশে হয়, সে দেশেই বিধর্মীরা প্রতিদিন ইফতার/সেহরি তুলে দিচ্ছেন অনেক মানুষের মাঝে। ধর্ষণ, ইফতার নিয়ে হাতাহাতি টাইপ কিছু ব্যাপার বাদ দিলে রমজান আসলেই বছরের অন্য এগারো মাসের তুলনায় চমৎকার সৌহার্দপূর্ন একটা সময়!

ঢাকার সবুজবাগে বৌদ্ধ বিহারে গত সাত বছর ধরে বৌদ্ধ ভিক্ষুরা নিজেরা চাঁদা তুলে ইফতার বিতরণ করছেন ছিন্নমূল মানুষের মাঝে। প্রতিদিন প্রায় সাড়ে তিনশ মানুষ এখান থেকে ইফতার খেয়ে রোজা পূর্ণ করেন। এটাই রোজার মহত্ত্ব! বছরের আর এগারো মাস এই দৃশ্য পাওয়া যাবেনা। বাসবো বৌদ্ধ মন্দিরেও গত পাঁচ বছর ধরে প্রতিদিন নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়া ঢাকার আটটি স্পটে ১ টাকায় বিনিময়ে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের ইফতার/সেহরি দিচ্ছে একটা সংগঠন।

এই সেহরি খেয়ে রোজা রাখছে অনেক মুসলিম। যে শহরে ইফতারের দাওয়াত দিয়ে শিশু ধর্ষণ করা হচ্ছে, সে শহরেই খুঁজলে এমন সৌজন্যতার নজির অনেক পাওয়া যাবে! এইসব মানুষদের জন্যে ভালোবাসা যারা মানুষকে মানুষ ভাবে, মালাউন কিংবা জঙ্গি না!

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *