Type to search

গল্প

আমি মরার সময় তুমি কই থাকবা?

প্যারিসের নীল আকাশও একদিন সাদা হয়ে যাবে। পুরনো হয়ে যাবে বিশ হাজার আশা এবং সপ্ন ভঙ্গের গল্প। ফাইভ ষ্টার হোটেলের বেশ্যাটাকে দেখা যাবে ডাষ্টবিনের পঁচা মাছের পোটলায়। উড়ে উড়ে হাওয়া হয়ে যাবে একদিন মানুষ, চড়ুই। হাওয়া হয়ে যাবে ক্রোধ, সুন্দর চোখ। বেলিরোডের নীল ফাষ্টফূডে কফির ধোঁয়া উড়াতে উড়াতে স্বপ্ন বুনার দল একদিন বিলিন হয়ে যাবে। ভ্যারিফায়েড প্রোফাইল ইউসলেস হবে। তিনহাজার ফলোয়ার তিনে নামবে। ভালোবাসায় ময়লা জমবে। ইতিহাসের স্বর্ণাক্ষরের পাতাও ক্ষয় হবে। মহাকালের সমুদ্রে বিলিন হয়ে যাবে ত্রিয়ান্ত্রী, জাহিদ রাজ রনি, ওরা ওরা। কবরের এপিটাপ লেখা হবে। তার উপর বিকেলের মিষ্টি রোদ পড়বে। বাতাসে শিউলী ফুল পড়বে। আমার কবরের পাশে একটা শিউলী ফুলের গাছ চাই…

দিন শেষে স্বপ্নগুলো যেমন দাঁড়কাকের মতো এলোমেলো হয়ে যায়, তেমনি এলোমেলো হয়ে যাবে ওর সাজানো সংসারও। দেয়ালের চুন খসে যাবে, খসে যাবে জুলিয়েটের রূপ। পূরনো গল্পগুলো ওরা ওরা শেয়ার করবে। ছোটখাটো ক্যাপশন থাকবে। “ভোদ্রলোক বড় ভালো মানুষ ছিলো” বা “আহা! চরম লাইকার ছিলো!” টাইপ ক্যাপশন।

আচ্ছা ত্রিয়ান্ত্রী, আমি মরার সময় তুমি কই থাকবা? কাছে পাবো তোমায়?

ইতিহাস তো বলে তার সম্ভাবনা ‘শ’ তে শূন্য। তুমি হয়তো তখন অফিসের এ্যসাইনমেন্ট তৈরি তে ব্যাস্ত থাকবা। অথবা তোমার প্রিয়মানুষের হাত ধরে সমুদ্রের পাড়ের বাতাসে পাপ পবিত্র করবে। অথবা তোমার লাশে ততদিনে পঁছন ধরবে। ত্রিয়ান্ত্রী, চিরযৌবনা তুমি নও!

শেয়ার করুন
Tags:

You Might also Like

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *