Type to search

সমসাময়িক

আমরা মানিয়ে নিতে পারি না কেন?

“প্রেমে প্রত্যাখ্যান করায় কুপিয়ে জখম/ এসিড নিক্ষেপ/ গায়ে হাত তোলা” – এসব নিউজ পত্রিকায় চোখে পড়ে প্রায়ই। আমি ভাবি ওসব বিশেষায়িত প্রেমিকদের কথা। আচ্ছা এরা কি জানি যে এরা কখনোই প্রেমিক হতে পারবে না? অদৌ জানে কি এদের অনুভূতিটাও প্রেম না; যে অনুভূতির জের ধরে তারা এসব ঘটায়।

তুমি যে অধিকারে একটা মেয়েকে চাইবো, একটা মেয়ে ঠিক সেই অধিকারেই তোমাকে ফিরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। তোমার যদি মনে হয় তাকে ছাড়া তোমার চলবেই না, তারও মনে হতে পারে তুমি তার জন্য পারফেক্ট না। সে আমার সাথে প্রেম করলেই সে ভালো; নাহলে তার প্রেম করার ক্ষমতা নষ্ট করে দিতে হবে, তাকে মেরে ফেলতে হবে- এমন কেনরে ভাই?

অনেকআগে কোন এক বাংলা মুভির যেনো স্ক্রিপ্ট ছিলো “এই মাল আমি না খাইতে পারলে অন্য কাউকে খাইতে দিমু না।” এই সূত্রের উপর যদি তুমি চলো, তাহলে তোমারটা প্রেম ছিলো না। তুমি কখনো তার খোঁপায় ফুল গুঁজে দেওয়ার জন্য, তাকে মোমোর আলোর সামনে বসিয়ে দেখার জন্য, সন্ধ্যার ছাদে গল্প করার জন্য – প্রেম করতে চাওনি; তুমি চেয়েছো “খেতে”; এবং যেহুতো তুমি খেতে পারোনি তোমার মনে হয়েছে “অন্য কাউকে খাইতে দিমু না”। ভোগ করা আর ভালোবেসে একটা চুমু খাওয়া এক ব্যাপার না। তাকে না পেলেই কি ভালোবাসা মরে যাবে? মনে করো তাকে পাওনি, এখন কি ভালোবাসার রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে? তুমি যদি সেচ্চায় প্রেমিক হতে চাও, তোমার ভালোবাসা হতে হবে অন্ধ। তুমি তোমার মতো ভালোবাসতে থাকে, সে অন্য কারো সাথে সুখে থাকুক। তার সুখটাই তো তোমার চাওয়া। তোমার যদি মনে হয়, “আমি কেন সুখে থাকবো না?” তাহলে তুমি বরং তোমার মতো একজন খুঁজে নাও যার জন্য তুমি পারফেক্ট। তারপর তাকে নিয়ে সুখে থাকো।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *